Search Any Post Of WizBD.Com
 HomeHot PostWordpressওয়ার্ডপ্রেস সাইটের ভিজিটর বাড়ানোর ১০টি সেরা টিপস

ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের ভিজিটর বাড়ানোর ১০টি সেরা টিপস

ওয়ার্ডপ্রেস সাইট/ব্লগ তৈরি করা সহজ, তবে ধারাবাহিক ট্র্যাফিকের মাধ্যমে সাইটটিকে সফল করা একটি চ্যালেঞ্জ। এটি এমন একটি শিল্প যা সময়ের সাথে শেখা হয়। আপনাকে নতুন ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে ট্র্যাফিক জেনারেট করতে সহায়তা করার জন্য এখানে কিছু টিপস রয়েছে:
ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের ভিজিটর বাড়ানোর ১০টি সেরা টিপস

এমন কন্টেন্ট তৈরি করুণ যা মানুষ চায় ও বেশি বেশি শেয়ার হয়

এটি সবসময় বলা হয়ে থাকে “কন্টেন্টই সবকিছুর মূল”। আনার কন্টেন্ট এর গুণমান আপনাকে শীর্ষে নিয়ে যেতে পারে; একই সময়ে, খারাপভাবে লিখিত বা কাঠামোগত সামগ্রী আপনাকে আপনার সমস্ত ভিউয়ারস হারিয়ে দিতে পারে।

এখানে মূল বিষয়টি হ’ল, ইউনিক বা সৃজনশীল এবং তথ্যবহুল কন্টেন্ট তৈরি করুণ। ব্যাকরণগত বা বাক্য গঠনের ত্রুটি থাকাটা মারাত্মক জিনিস। আপনার কন্টেন্ট তৈরির পরিকল্পনা করার সময়, আপনার দর্শকদের দৃষ্টিকোণ থেকে চিন্তা করুন।

তারা আপনার কাছ থেকে কী জানতে চায়? দর্শকরা বিভিন্ন ধরণের, কিছু নিয়মিত দর্শক, কিছু সক্রিয় ব্যবহারকারী এবং কিছু কম সক্রিয় ব্যবহারকারীও থাকতে পারে। কিছু লোক তাদের যা পছন্দ তা শেয়ার করতে পছন্দ করে। এই জাতীয় ব্যক্তিরা সামাজিক নেটওয়ার্কগুলিতে অত্যন্ত সক্রিয়।

উদ্দেশ্য এমন ব্যবহারকারীর, যারা কিনা আপনার ব্লগ পড়ে শেয়ার করে। শেয়ার করার সাথে সাথে অন্যান্য ব্যক্তিরা আপনার ব্লগ সম্পর্কে জানতে পারবে এবং যারা আগ্রহী তারা আপনার নিয়মিত দর্শকও হতে পারে।

আপনার পোস্টগুলিতে প্রাণবন্ত ছবি, ইনফোগ্রাফিক এবং ভিডিও ব্যবহার করুন। লোকেরা ভিজ্যুয়াল জগতের সাথে আরও সংযুক্ত মনে হয় এবং এই জাতীয় পোস্ট শেয়ার করে নেওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। আপনার ব্লগ পোস্টগুলির শেয়ার যত বেশি হবে আপনার ব্লগে আরও বেশি ট্র্যাফিক পাওয়ার সম্ভাবনা তত বেশি হবে।

তবে মনে রাখবেন, এমন কোন ছবি বা ভিডিও ব্যবহার করবেন না যা আপনার ব্লগপোস্টের সাথে সম্পর্কিত না।

আপনার কন্টেন্ট এসইও উপযোগী করুন

আপনার কন্টেন্ট এসইও উপযোগী করুন

এসইও সঠিকভাবে করলে আপনার ট্র্যাফিক এমনিতে আসবে। সার্চ ইঞ্জিনগুলি ট্র্যাফিকের দুর্দান্ত উত্স এবং ওয়ার্ডপ্রেস একটি এসইও ফ্রেন্ডলি প্ল্যাটফর্ম। আপনাকে ব্লগ বা ওয়েবসাইট সার্চ ইঞ্জিনকে বন্ধুত্বপূর্ণ করে তুলতে আপনাকে কেবল ওয়ার্ডপ্রেসের সেটিংস পরিবর্তন করতে হবে।

উদাহরণস্বরূপ, আপনার সাইটের ডেভেলপের সময় আপনার প্রাইভিসি সেটিংস চেক করা দরকার। “Discourage search engines from indexing this site” এই বক্সটি চেক করুন।

একইভাবে, পার্মালিঙ্ক সেটিংস রয়েছে যেখানে আপনাকে ইউআরএল কনফিগার করতে হবে যা সার্চ ইঞ্জিন বান্ধব। আপনার ব্লগটিকে কখনও আনক্যাটাগরাইজড রাখবেন না; সর্বদা পোস্টের জন্য উপযুক্ত ক্যাটাগরি সিলেক্ট করুন।

একইভাবে এখানে অনেকগুলি ছোট ছোট পরিবর্তন রয়েছে যা আপনাকে আপনার ব্লগ এসইও বান্ধব করে তুলতে এবং ট্রাফিক পেতে সহায়তা করতে পারে। মনে রাখবেন, “সঠিকভাবে ২০% কাজ করা বেঠিকভাবে ৮০% কাজ করার থেকে উত্তম।”

সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করুণ

সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করুণ

ট্র্যাফিক পাওয়ার জন্য সোশ্যাল মিডিয়া একটি অত্যন্ত শক্তিশালী মাধ্যম। LinkedIn এবং Google+ এ 300 মিলিয়নেরও বেশি সক্রিয় ব্যবহারকারী ছিল পূর্বে। তবে এখন Google+ অফিসিয়ালি বন্ধ করা হয়েছে। এছাড়াও একা ফেসবুকের ১ বিলিয়নেরও বেশি সক্রিয় ব্যবহারকারী রয়েছে এবং প্রতিনিয়ত এই সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

সোশ্যাল মিডিয়াতে সক্রিয় ব্যক্তিদের “কন্টেন্ট মার্কেটিং” বা প্রভাবক হিসাবে অভিহিত করা যেতে পারে।

এখানে কয়েকটি কার্যকর সোশ্যাল মিডিয়া টিপস রয়েছে:

সামাজিক মিডিয়া সাইটগুলিতে সাফল্য অর্জনের জন্য ধৈর্য এবং অধ্যবসায় প্রয়োজন। তাই আপনি উল্লিখিত সমস্ত টিপস সাবধানতার সাথে অনুসরণ করেছেন তা নিশ্চিত করুন।

অ্যানালিটিক্স ব্যবহার করুন

অ্যানালিটিক্স ব্যবহার করুন

গুগল অ্যানালিটিক্স একটি দুর্দান্ত টুল যা ট্রাফিকের উত্সগুলি চেক করেরে তাই প্রতি ব্লগ বা সাইটের মালিককে অবশ্যই ইনস্টল করতে হবে। এটি সর্বাধিক ট্র্যাফিক, মোট পরিদর্শন, সাইটে দর্শকদের দ্বারা ব্যয় করা গড় সময়, নতুন ভিজিটের শতাংশ এবং বাউন্সের হারের মতো সমস্ত তথ্য দেয়।

এই সমস্ত ডেটা আপনার ব্লগের জন্য মার্কেটিং কৌশল তৈরি করতে খুব সহযোগিতা করবে। আপনি হাই ট্র্যাফিকের উত্সের পাশাপাশি উচ্চমানের ট্র্যাফিকের উত্সগুলি খুঁজে পেতে পারেন। উচ্চমানের ট্র্যাফিকের অর্থ দর্শকরা আপনার সাইটে বেশি সময় ব্যয় করে।

এটি আপনাকে আপনার কৌশলটি তৈরি করতে এবং আপনাকে উচ্চ মানের ট্র্যাফিক দেওয়ার সাইটগুলিতে মনোনিবেশ করতে সহায়তা করবে।

ছবি, ইলাস্ট্রেশনস এবং গ্রাফিক্স ব্যবহার করুন

ছবি, ইলাস্ট্রেশনস এবং গ্রাফিক্স ব্যবহার করুন

আমি সর্বদা আপনার পোস্টগুলিতে সম্পর্কিত ছবি, ইলাস্ট্রেশন এবং গ্রাফিক্স ব্যবহার করার পরামর্শ দেই। একটি ছবি কন্টেন্টের চেয়ে বেশি কথা বলে।

আপনি হয় নিজে ইমেজ বা ইলাস্ট্রেশন তৈরি করতে পারেন, বা আপনি Shutterstock এর মতো সাইট থেকে বা Pexels থেকে বিনামূল্যে এগুলি কিনতে পারেন। এই চিত্রগুলি ইমেজ সার্চের মাধ্যমে ট্র্যাফিকের একটি ভাল উত্স।

এখানে একটি দুর্দান্ত টিপস হ’ল, সর্বদা অন্য লোককে আপনার ছবিগুলি শেয়ার করে নেওয়ার অনুমতি দিন তবে শর্তাধীন যে তারা ছবির নিচে আপনার সাইটের লিঙ্ক দেয়। এই শর্ত আপনি আপনার সাইটেও উল্লেখ করতে পারেন।

যদি কেউ আপনাকে আবার লিঙ্ক না দিয়ে আপনার ছবিগুলি শেয়ার করে দেয় তবে আপনি ইমেজ সার্চ ফাংশনটি ব্যবহার করে এটি খুঁজে পেতে পারেন। আপনাকে লিঙ্কগুলি ফিরিয়ে দিতে আপনি সেই সাইট মালিকদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন এবং সম্ভাবনা থাকে যে আপনি এটি পেয়ে যাবেন।

কিওয়ার্ড রিসার্চ

কিওয়ার্ড রিসার্চ

সঠিক কীওয়ার্ডগুলির পছন্দ করা কোনও ওয়েবসাইট বা ব্লগের সাফল্যে একটি মুখ্য ভূমিকা পালন করে।

অনেক টুলস কিওয়ার্ড রিসার্চ করতে সহায়তা করতে পারে যেমন Adwords Keyword Planner, Keywordtool.io ইত্যাদি। আপনি সাধারণত আপনার ইন্ডাস্ট্রির সাথে সম্পর্কিত লোকেদের সার্চ করা বাক্যাংশগুলি খুঁজে বের করতে এই সরঞ্জামগুলি ব্যবহার করতে পারেন।

এই কীওয়ার্ডগুলি আপনার পোস্টের জন্য টাইটেল তৈরি করতে ব্যবহার করা উচিত বা এসইও ফ্রেন্ডলি পোস্ট করা। টার্গেটেড কীওয়ার্ড সহ পোস্টগুলি অনুকূলকরণ আপনাকে আরও ট্র্যাফিক পেতে সহায়তা করতে পারে। টার্গেট কীওয়ার্ডটি টাইটেলে ক্রিয়েটিভ ভাবে ব্যবহার করা উচিত এবং কন্টেন্টের বিষয়টিতে ফোকাস করা উচিত।

গেস্ট ব্লগিং

গেস্ট ব্লগিং

গেস্ট ব্লগিং মানে অন্য সাইটে আপনি আপনার কন্টেন্ট পোস্ট করবেন সাথে আমার সাইটের লিংক সহ আর আপনার সাইটে অন্যদের পোস্ট করতে সম্মতি দেওয়া।

গেস্ট ব্লগিং ট্র্যাফিক পাওয়ার একটি কার্যকর উপায়। নতুন ব্লগগুলির জন্য, প্রতিষ্ঠিত ব্লগের মালিকদের তাদের ব্লগে পোস্ট করার জন্য সম্মতি পাওয়া কঠিন। এই জাতীয় পরিস্থিতিতে ব্যক্তিগত সংযোগ ব্যবহার করার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

এমন লোকদের সাথে যোগাযোগ করুন যাদের একটি প্রতিষ্ঠিত অডিয়েন্স রয়েছে এবং যাদের আপনার সম্ভাবনার প্রতি আস্থা আছে। গেস্ট ব্লগিং একটি ব্র্যান্ড তৈরি এবং নতুন লোকের সাথে যোগাযোগ করার একটি দুর্দান্ত উপায়।

অপ্টিমাইজড সাইট ডিজাইন

একটি ভাল অপ্টিমাইজড সাইট ডিজাইন যে কোনও সাইট বা ব্লগের সাফল্যের পূর্বশর্ত এবং একটি ভাল থিম এটির মূল অংশ। একটি শক্তিশালী এবং পেশাদার ডিজাইন দর্শকদের আস্থা অর্জনে সহায়তা করতে পারে। ইউজার এক্সপেরিয়েন্সও একটি প্রধান ভূমিকা পালন করে।

একজন ব্যবহার কারি যাতে সহজেই আপনার সাইট থেকে সে যা চায় তা খুঁজে পায়। সবকিছু যাতে তার চোখের সামনে থাকে এমন ডিজাইন হওয়া দরকার।

মোবাইল, টেবলেট, ল্যাপটপ, আইফোন সব ডিভাইসে যাতে আপনার সাইট সুন্দর দেখায় সেদিকে খেয়াল রাখা দরকার। আর ফাংশনালিটি ইউএক্স (UX) হওয়া দরকার।

ভিজিটরদের রিপ্লে দিন

যখন দর্শকরা আপনার পোস্টগুলি পড়েন এবং তাদের যদি এটি পছন্দ হয় বা কোনও সন্দেহ থাকে, তারা সেই পোস্টের নিচে কমেন্ট করেন। আপনি সমস্ত কমেন্টের রিপ্লে দেওয়ার চেষ্টা করুণ। যদি সন্দেহ থাকে তবে তাড়াতাড়ি সন্দেহ দূর করুন।

কমেন্টে যদি আপনার পোস্ট কে ভালো বলে তাহলে সেই কমেন্টরও কিছুএকটা রিপ্লে দিন। তবে, অদ্ভুত কমেন্টগুলি সরাতে দ্বিধা বোধ করবেন না এবং নিশ্চিত করুন যে আপনি ব্লগকে স্প্যামিং জায়গা থেকে দূরে রেখেছেন কি না। আর সবসময় নমনীয় ও সুশীল/ভদ্রভাবে রিপ্লে দিন।

যে কোনও ব্লগ বা ওয়েবসাইটের সাফল্য ট্র্যাফিকের উপর নির্ভর করে, তাই ওয়ার্ডপ্রেস সাফল্যের জন্য উপরের টিপসগুলি অনুসরণ করুন, ইনশাআল্লাহ সাফল্য আপনার দরজায় এসে কড়া নাড়বে!

1 month ago (10:48 pm) 3452 views
Report

About Author (817)

JS Masud
Administrator

Quran is only medicine of heart. and remember Allah is very powerful.

 

2 responses to “ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের ভিজিটর বাড়ানোর ১০টি সেরা টিপস”

  1. Hm Mustafizur Rahman Hm Mustafizur Rahman
    Contributor
    says:

    nice

Leave a Reply

You must be Logged in to post comment.

Related Posts

Copyright © WizBD.Com, 2018-2019