Search Any Post Of WizBD.Com
 HomeUncategorizedচলুন জেনে নেই সময়কে কিভাবে থামানো সম্ভব। আর থামালে কি হতে পারে?

চলুন জেনে নেই সময়কে কিভাবে থামানো সম্ভব। আর থামালে কি হতে পারে?

আসসালামু আলাইকুম

আশাকরি সবাই ভালো আছেন। আমি ও আপনাদের আল্লাহর রহমত ও আপনাদের দোয়ায় ভাল আছি


★★পোষ্ট ★★


সময়কে জয় করার কত চেষ্টাই না করেছে মানুষ। কিন্তু নিজের কাজ ঠিকই করে চলেছে সময়। হলিউডের সায়েন্স ফিকশন মুভিতে দেখা যায় সময়ের অনেক পেছনে ফিরে যাবার কিংবা বর্তমানে বসে ভবিষ্যতে ঢুকে পড়ার নানা দৃশ্য। কিন্তু বাস্তবে কি এটা সম্ভব? যদি সম্ভব হতো তবে কত মজাই না হতো। একই বিন্দুতে দাঁড়িয়ে প্রত্যেকে নিজ নিজ অবস্থা উপভোগ করতে পারতো।তবে বাস্তবেই কি সময় থামানো যায়? আর কি-ই বা হবে যদি থমকে যায় সময়?

সময় থমকে গেলে কি হবে তা জানার পূর্বে আমাদের জেনে নিতে হবে আসলেই কি সময় থামানো সম্ভব? আর যদি তা সম্ভব হয় তাহলে কীভাবে? ফিজিক্সের সূত্র অনুযায়ী বাস্তবে এই পৃথিবীতে সময় থামানো সম্ভব নয়। কারণ পদার্থবিজ্ঞান অনুযায়ী সময় হল দূরত্বের এবং গতি এর ভাগফলের সমান। তাহলে যদি সময়কে থামাতে হয় তাহলে দূরত্বের এবং গতির ভাগফল শূন্য হতে হবে।কিন্তু বিজ্ঞানী আইনস্টাইনের তত্ত্ব অনুযায়ী যদি কোনো বস্তু বা ব্যাক্তিকে আলোর সমান গতিতে পৌঁছানো যায়। তবে সেই বস্তু বা ব্যাক্তির জন্য সময় থমকে যাবে। কিন্তু তা কখনো সম্ভব নয়। কারণ আলোর গতি প্রতি সেকেন্ডে তিন লাখ কিলোমিটার।


আচ্ছা যদি বিশ্ব থমকে যেত তাহলে কেমন হত??

★★তাহলে জেনে নেয়া যাক কি হবে সময় থমকে গেলে?★★

আমরা জানি পৃথিবীর সবকিছুই ছোট ছোট পরমাণু দিয়ে তৈরি যার মধ্যে রয়েছে প্রোটন, নিউট্রন এবং ইলেকট্রন। এই ইলেকট্রনগুলো পরমাণুর কেন্দ্রে অবস্থিত প্রোটন এবং নিউট্রন এর চারিদিকে ঘুর্ণায়মান। ফলে যদি সময় থেমে যায় তহলে গতিও থেমে যাবে। ফলে পৃথিবীর সকল অনু পরমাণু থমকে যাবে। যে কারণে পৃথিবীতে অবস্থিত সকল বস্তুই স্থির হয়ে যাবে। মানুষ থেকে শুরু করে জীবজন্তু সকল বস্তুই স্থির হয়ে যাবে। এই স্থির মানুষ এবং জীবজন্তুরা দেখতে বা শুনতে পাবেনা। কারণ আলোর ফোটন রশ্মি এবং শব্দ তরঙ্গের গতিও থেমে যাবে। ফলে তা আমাদের কানে এবং চোখে পৌছাবেনা। তাই সময় থেমে গেলে মানুষের দৃষ্টি এবং শ্রবন শক্তি দুটিই চলে যাবে। এমনকি মানুষের ব্রেন ও কাজ করা বন্ধ করে দিবে। কারণ ব্রেনকে সচল রাখতে প্রয়োজনীয় নিউরনের সিগন্যালও গতিময়। ফলে আমরা কিছুই চিন্তা করতে পারব না। মজা করতে পারব দুরের কথা জীবনটাই বরবাদ হয়ে যাবে।। কি বলেন আপ্নারা।

সময় থেমে গেলে এসকল সিগন্যাল থেমে মানব তথা জীবজন্তু সকলকেই অবশ করে দিবে। কিন্তু এখানেই শেষ নয়। যদি এই অবস্থা কিছুক্ষণ থাকে তবে প্রাণীজগতের জন্য সবথেকে প্রয়োজনীয় অক্সিজেনের সাপ্লাই এবং বায়ুমন্ডল ও থমকে যাবে। যার কারণে আস্তে আস্তে পৃথিবীর সকল জীবজন্তু শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মারা যাবে। ফলে পৃথিবী একটি মৃত গ্রহে পরিণত হবে। হাহাহাহা সময়কে থামাতে পারলে কি লাভ দেখলেন???★★কিন্তু যদি আইন্সটাইনের তত্ত্ব অনুযায়ী কোনো মানুষকে আলোর গতিতে নেয়া যায় তবে?★★

পৃথিবীর পরিবেশে কোনো মানুষকে আলোর গতিতে নেয়া সম্ভব নয়। তবে যদি কোনো উপায়ে নেয়া হয় তাহলে ওই ব্যাক্তির জন্য পৃথিবীর সবকিছু থেমে যাবে এবং ওই ব্যাক্তির দৃষ্টিশক্তি শ্রবণ শক্তি সবকিছুই ধীরে ধীরে লোপ পাবে। কিন্ত যদি কোনো বিশেষ যন্ত্রের মাধ্যমে ব্যাক্তিকে সময়ের গতিতে নেয়া হয়। তবে ওই যন্ত্রের মধ্যে যতক্ষণ অক্সিজেন সাপ্লাই থাকবে ততক্ষণ পর্যন্ত ব্যাক্তি অচেতন অবস্থায় জেগে থাকবে। অক্সিজেন শেষ হওয়া মাত্রই তিনি মারা যাবেন।এখন কত অক্সিজেন আর আপনি সাথে নিতে পারবেন, আপনিই বলুন।আপনি কয় বছর বাছতে পারবেন অক্সিজেন ট্যাংক নিয়ে।



★★তাই পরিশেষে বলা যেতে পারে যে, সময়কে থামানোর চেষ্টা সম্পুর্ণ বোকামি ছাড়া আর কিছুই নয়। ★★


পোষ্ট টি কষ্ট করে পড়ার জন্য ধন্যবাদ




পোষ্টটি ভাল লাগলে আমার ফালতু সাইট টা ঘুরে আসবেন।★★Creativebd★★

4 months ago (2:19 pm) 612 views
Report

About Author (28)

RAKIBUL49
Author

ⓂⒺⓈⓈⒺⓃⒼⒺⓇ🆔 ||||ⓌⒺⒷⓈⒾⓉⒺ||ⒺⓂⒶⒾⓁ🆔

Leave a Reply

You must be Logged in to post comment.

Related Posts

Copyright © WizBD.Com, 2018-2019