Search Any Post Of WizBD.Com
 HomeTech Newsপ্রযুক্তি চুরির অভিযোগে হুয়াওয়ের বিরুদ্ধে মামলা করেছে যুক্তরাষ্ট্র

প্রযুক্তি চুরির অভিযোগে হুয়াওয়ের বিরুদ্ধে মামলা করেছে যুক্তরাষ্ট্র

আসসালামু আলাইকুম

আশাকরি সবাই ভালো আছেন
সবাই ভালো থাকেন ভালো রাখেন এই প্রত্যাশাই করি সব সময়

হুয়াওয়ের প্রযুক্তি- ব্যবহার নিরুৎসাহিত করাই নয় এবার তাদের বিরুদ্ধে তথ্য গোপন এবং প্রযুক্তি চুরির অভিযোগ এনেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

এ অভিযোগে চীনা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা করেছে মার্কিন কর্তৃপক্ষ। যদিও এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছে হুয়াওয়ে।

আর চীন বলছে মার্কিন সরকার বাণিজ্যের ক্ষেত্রে প্রতিযোগিতার পরিবেশ নষ্ট করছে।

বিস্তারিত নিচে
Huawei logo

চীনের শীর্ষ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে কে এবার বিচারের আওতায় আনতে মার্কিন আদালতে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দায়ের শুরু করেছে দেশটির সরকার।

প্রথম অভিযোগটি আনা হয়েছে ডিসেম্বরে কানাডায় গ্রেফতার হওয়া প্রতিষ্ঠানটির প্রধান আর্থিক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ মার্কিন নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইরানের সঙ্গে গোপনে ব্যবসা চালানো।

একই সাথে অভিযোগ আনা হয়েছে স্কাইকম এর সাথে হুয়াওয়ের সম্পর্কের বিষয়ে ব্যাংক ও যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃপক্ষকে মিথ্যা তথ্য দেওয়ার।

তারা জানিয়েছিল স্কাইকম আলাদা একটি প্রতিষ্ঠান এবং হুয়াওয়ে সাথে এর কোন সম্পর্ক নেই। স্কাইকম আসলে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে হুয়াওয়ের হয়ে ইরানে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিল।

এমন মিথ্যা তথ্য দেওয়ার কারণে আমাদের ব্যাংক প্রতিষ্ঠানটি সাথে ব্যবসা করেছে, দেশের আইন যেটা কে সমর্থন করে না।

এখানেই শেষ নয়, হুয়াওয়ে এর বিরুদ্ধে মার্কেট প্রতিষ্ঠান টি মোবাইল এর রোবটিক্স প্রযুক্তি টপি’কে চুরির অভিযোগ আনা হয়েছে।

যেটি স্মার্টফোন টেস্টিং এ মানুষের হাতের বিকল্প হিসেবে কাজ করে।

এফবিয়াই এর মতে

“হুয়াওয়ে গোপনে টি মোবাইলের রোবট প্রযুক্তি ছবি তুলেছে এবং তা চুরি করেছে।

এর মাধ্যমে তারা টি মোবাইলের সাথে করা তথ্য গোপন রাখার চুক্তিটি অমান্য করেছে।

হুআওয়েই এর বিরুদ্ধে এই মামলা গুলি একটি বিষয় বুঝিয়ে দিচ্ছে এ ধরনের অপরাধের বিরুদ্ধে আমরা কতটা সচেতন। এই অভিযোগগুলো সতর্ক বার্তা দেয় যে আমাদের আইন বিতর্কিত করে এমন বাণী এফবিআই কখনোই প্রশ্রয় দেবে না।”


যদিও হুয়াওয়ে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলছে টপি এর বিষয়ে 2017 সালে টি মোবাইলের সাথে বিরোধ নিষ্পত্তি করেছে।

সেখানে এটিকে নতুন করে সামনে আনা অন্যায় ও অযুক্তিক।

সোমবার দেশটির শিল্প ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় বলেছে “কোন তথ্য প্রমাণ ছাড়াই হুয়াওয়ের সুনাম নষ্টের জন্য রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার অপব্যবহার করছে যুক্তরাষ্ট্র।

যুক্তরাষ্ট্রের কাছে এসব অভিযোগের পক্ষে তথ্য প্রমাণ নেই। একটি প্রতিষ্ঠানের সুনাম নষ্ট করার জন্য তারা রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা প্রয়োগ করছে। এ ধরনের আচরণ অনৈতিক। এই খাতের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিভাগ হিসেবে আমরা চিনা প্রতিষ্ঠানগুলোকে আন্তর্জাতিক এবং স্থানীয় নীতি মেনে ব্যবসা চালিয়ে যেতে উৎসাহিত করছি।”

চীনের অভিযোগ, হুয়াওয়ের ফাইভ জি প্রযুক্তির ব্যবহার ঠেকাতে মরিয়া হয়ে উঠেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

©তথ্যসূত্র Business Report মাছরাঙা।

8 months ago (3:05 pm) 646 views
Report

About Author (717)

JS Masud
Administrator

Quran is only medicine of heart. and remember Allah is very powerful.

Leave a Reply

You must be Logged in to post comment.

Related Posts

Copyright © WizBD.Com, 2018-2019