Search Any Post Of WizBD.Com
 HomeStoriesফ্রিল্যান্সিং গল্প :- “ইন্টারনেট থেকে আয়”-(পর্ব-২)

ফ্রিল্যান্সিং গল্প :- “ইন্টারনেট থেকে আয়”-(পর্ব-২)

মোঃ ইয়াসিন উল হায়দার।একজন প্রফেশনাল এসইও এক্সপার্ট।আজ আমি তার ফ্রিল্যান্সিং এ সফলতার গল্প শেয়ার করবো।আশা করি উনার এই গল্পটি আপনার বেক্তি জীবনে অনেক প্রভাব ফেলবে।

ফ্রিল্যান্সিং-এর শুরুর গল্পটা

–  ফ্রিল্যান্সিং-এ আসার পেছনে কৃতজ্ঞতা হল আমার দুই বন্ধু তানভির আহমেদ ও নাজমুল হক । তানভির আহমেদ প্রথম আমাকে সোশ্যাল মিডিয়ার একটি কাজ দিয়েছিলেন। সেখান থেকেই ফ্রিল্যান্সিং-এর প্রতি আগ্রহ বাড়তে থাকা। এর পর্যায়ক্রমে প্রচণ্ড প্রজ্ঞা, কমিটমেন্ট ও ভালবাসা থেকে এখানেই নিজের ক্যারিয়ার বা ভবিষ্যৎ তৈরির বীজ বপন হয়।

ফ্লিল্যান্সিং-এর প্রথম কাজের অনুভূতি

– ফ্রিল্যান্সিং-এর প্রথম কাজ ছিল ওডেক্স-এ ৫০ সেন্টএর। ছাত্র অবস্থায় তখন আসলে কাজটি করার অনুভূতি ছিল আলাদাই। তাই কাজটি এখনও আমার প্রোফাইলে এবং আমার ছোট দুই বোনের প্রোফাইলে আছে। আমি এই কাজটি এখনও ঘন্টায় ৩ ডলার করে পর্যায়ক্রমে করে যাচ্ছি।

ফ্রিল্যান্সিং এর জন্য এস. ই. ও. কে বেছে নেয়া

– ফ্রিল্যান্সিং এর জন্য এস. ই. ও. কে বেচে নেওয়ার সবচেয়ে বড় কারণ হচ্ছে এস. ই. ও.-র অনেক বড় একটি বাজার রয়েছে এবং সব ধরনের ব্যবসা ই-কমার্সে চলে আসার প্রবণতা রয়েছে। ফ্রিল্যান্সিং-এ এস. ই. ও. গুরুত্বপূর্ণ কেননা অনলাইন বাজার সম্প্রসারণের এবং নিজের ব্যবসা বৃদ্ধির ক্ষেত্রে এস. ই. ও. -র বিকল্প নেই। আর এখন অনলাইন  মার্কেটিং ছাড়া কোন কিছু এগুতে পারবেনা , সেই ক্ষেত্রে আমার মনে হয় এসইও বর্তমানে সব দিক থেকে এগিয়ে আছে ।

ফ্রিল্যান্সিং এর পাশাপাশি যা করছি।

– আসলে ফ্রিল্যান্সিং এর পাশাপাশি যা করছি তা এমন কিছু নেই। প্রতিদিনই নতুন নতুন বিষয় শিখতে হচ্ছে এবং কাজ করে যাচ্ছি। সত্যি কথা নিজের টিমকে নিয়ে কাজ করতে আনন্দবোধ করি এবং ভাল লাগে। নিজের টিমকে নিয়ে আন্তরিকভাবে কাজ করতে পারছি বলে নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে হয়।

ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ারে ব্যর্থতার কি কি কারণ হতে পারে

-এই ক্ষেত্রে ব্যর্থতার অনেক কারণ রয়েছে। এই পেশাটা অন্য পেশার তুলনায় অনেক বেশি চ্যালেঞ্জিং। আগেই আমি বলেছি নির্দেশনার অভাব, প্রফেসনালিজমের অভাব, নিয়মানুবর্তিতার অভাব, পর্যাপ্ত পরিমান রিসোস ( জনবল, টিউটোরিয়াল, বই, প্রসেস) ইত্যাদির জন্য ব্যর্থ হতে পারে। সরকার যেভাবে ফ্রিল্যান্সিংকে প্রচার করছে, তাতে ভবিষ্যৎ-এ ফ্রিল্যান্সিং অনেক দূরে এগিয়ে যাবে ।  তবে ধৈর্য সহকারে লেগে থাকা এবং নিজের স্কিল বৃদ্ধির মাধ্যমে এখানে অবস্থান তৈরি করা যেতে পারে। আর প্রতিটি ক্ষেত্রেই ব্যর্থতা আসবে,ব্যর্থ হয়ে পিছিয়ে গেলে আপনি কখনও সফল হতে পারবেন না। সফল ব্যাক্তিদের দেখুন তারা একদিনেই সাফল্যতা পায় নি। তাদের সাফল্যতার পিছনে ব্যর্থতা লোকিয়ে আছে। ব্যর্থতা আপনাকে সাফল্যতার দিকে নিয়ে যাবে, তাই আমি বলব ব্যর্থ হয়ে থমকে যাবেন না। ব্যর্থতাকে জয় করতে শিখুন, দেখবেন আপনি একসময় অন্যের সাফল্যের পথিক হয়ে দাঁড়িয়েছেন।

যে blog বা site আপনি বেশি Follow করা হয়

– প্রথম দিকে অনেক ব্লগই follow করতাম, কিন্ত এখন আর ঐভাবে follow করা হয় না। তবে ব্রায়ান ডিন এর ব্যাকলিংকো ও গচ-এস. ই. ও. এই দুইটি ব্লগ খুবই উপকারী নতুন ফ্রিল্যান্সারদের জন্য।

সবশেষে বলতে চাই,প্রতিটা মহান মানুষেরই একটা না একটা সফলতার কাহিনী আছে।আমাদের উচিত দৈনন্দিন জীবনে তাদের সেই সফলতার কাহিনী পড়া।

4 months ago (8:41 pm) 492 views
Report

About Author (80)

Author

নিজে শিখুন এবং অন্যকে শিখতে সাহায্য করুন

 

3 responses to “ফ্রিল্যান্সিং গল্প :- “ইন্টারনেট থেকে আয়”-(পর্ব-২)”

  1. SAjid imon
    Author
    says:

    ভাই এইটা একজন ফ্রিল্যান্সার এর গল্প।আর তার গল্প কি আমি বানিয়ে লিখতে পারবো

  2. SAjid imon
    Author
    says:

    আমি নিজে বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সারদের সাফল্যের গল্প পড়ি আর অনুপ্রেরণা পাই।তাই এখানে শেয়ার করলাম।

Leave a Reply

You must be Logged in to post comment.

Related Posts

Copyright © WizBD.Com, 2018-2019