Search Any Post Of WizBD.Com
 HomeFreelancingWeb designWeb developmentওয়েব ডিজাইন এন্ড ডেভেলপমেন্ট পরিপূর্ণ গাইডলাইন

ওয়েব ডিজাইন এন্ড ডেভেলপমেন্ট পরিপূর্ণ গাইডলাইন

ওয়েব ডিজাইন শিখার জন্য অনেক প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ শিখতে হয়,নানাধরণের কোডিং এর ঝামেলা সহ অনেক বিষয় একজন বিগেনারের মাথায় কাজ করে।আবার অনেকই ওয়েব ডিজাইন বড় একটি ব্যাপার বলে মনে করে । কেউ কেউ আবার কয়েকদিন কিছু প্রোগ্রামিং শিখার পর মনে করে এটা আমার দ্বারা সম্ভব না।প্রথমেই হাল ছেড়ে দেয়।মনে করে ব্যাপারটা আসলে শুধু জিনিয়াসদের জন্যই। কিন্তু তাহলে কীভাবে এর চাহিদা এত্ত বেশী এবং কীভাবে শিখা যায় অন্যান্য জিনিয়াসদের মত? এই সকল প্রশ্ন আপনাদের মাথায় ঘুরপাক খায়!
ওয়েব ডিজাইন এর চাহিদা এবং ক্যারিয়ার
কিন্তু ব্যাপারটা মোটেও এত্ত ঝামেলার না, আপনি যদি ধৈর্য এবং ৬-৭ মাসের সময় ধরে নিয়মিত প্র্যাকটিস করতে পারেন তাহলে সত্যি আপনি ওয়েব ডিজাইনার হতে পারবেন। এই আর্টিকেলটিতে আমি এই বিষয়ে ধারনা দিব যে কীভাবে প্রথম থেকে শুরু করে একজন ওয়েব ডিজাইনার হওয়া যায়। কিভাবে ওয়েব ডিজাইন বা ডেভেলপমেন্ট সেক্টরে নিজের ক্যারিয়ার গড়তে পারেন।তো চলুন শুরু করা যাক :

ওয়েব ডিজাইন ও ডেভেলপমন্ট কী ?
ওয়েব ডিজাইন : ওয়েব ডিজাইন হলো সাইটের সামনের ভিউটা অর্থাৎ যেটা ইউজার বা ব্যবহারকীরে দেখে সেটা ডিজাইন পার্টের অংশ। অর্থাৎ যেটা html ,css, bootstarp, freamwork দিয়ে করা হয়। এটাকে ফ্রন্টইন্ডও বলা হয়।
শুধুমাত্র HTML ,CSS দিয়ে করা ওয়েব সাইট হচ্ছে স্টাটিক ওয়েব সাইট। আর ওয়েব সাইটের ব্যাকইন্ড অর্থাৎ যেটা ব্যবহার কারী দেখতে পায় না সেই অংশের কাজ হলো ব্যাকইন্ড।এটাকে ডাইনামিক অংশও বলা হয়।

কে ওয়েব ডেভেলপার হতে পারে?

যে কেও চাইলে ওয়েব ডেভেলপার হতে পারে কারন এর জন্য আপনার কোন ডিগ্রির দরকার নাই। তবে যেটা দরকার সেটা হলো আপনার আগ্রহ, ধৈর্য, আর প্রচন্ড ইচ্ছা শক্তি। আমাদের দেশের এমন অনেক ডেভেলপার আছে যাদের একাডেমিক ব্যাকগ্রাউন্ট আইটি না কিন্তু তারপরেও তারা ওয়েব ডেভেলপমেন্ট সেক্টরে কাজ করে প্রতি মাসে কয়েক লক্ষ টাকা ইনকাম করছে।

তবে তার মানে এটা নয় যে ওয়েব ডেভেলপার হওয়া খুবই সহজ কাজ। কারন প্রয়োজনীয় দক্ষতা অর্জনের জন্য আপনার প্রচুর ডেডিকেটেড থাকা ,নিজের মেধা ও সময় খরচ করা লাগবে। অর্থাৎ সফল হতে আপনার কোন সর্টকাট নাই।

কি কি বিষয় জানতে হবে ?

নিজেকে একজন ওয়েব ডেভেলপার বলার আগে আপনাকে নিচের দক্ষতা গুলা অজর্ন করতে হবে।

ফ্রন্টইন্ড ডেভেলপমেন্ট

HTML এবং CSS: html ,css শেখা ছাড়া ওয়েব ডিজাইন করা অসম্ভব।কারন ওয়েব সাইটের সামনের স্ট্রাকচার দাড় করাতে HTML এবং ভিজুয়াল প্রেজেন্টেশনের জন্য CSS অর্থাৎ কালার, ফন্ট, লেআউট ঠিক করার করার জন্য CSS ব্যবহার করা হয়। তাই প্রথম ১ মাস এই HTML ,CSS শেখার পিছনে ব্যয় করুন। html এবং css শেখা নিংসন্দেহে অনেক সহজ।

Javascript: javascript একটি স্ক্রিপটিং পোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ।যেটা ওয়েব সাইটকে আরো আকর্ষনীয় করে । এর সাহায্যে আপনি পপ আপ তৈরি করতে পারেন, এছাড়া মাউস ক্লিক বা অন্যান্য কিছুর উপরে নির্ভর করে অনেক আকর্ষনীয় ওয়েব সাইট দাড় করানো সম্ভব।এটি শিখতে ১-১.৫ মাস সময় লাগবে।

Jquery: javascript এর একটি ফ্রেমওয়ার্ক হলো jquery। এর সাহায়্যে Javascript কে আরো সহজ ভাবে কম কোডে লিখে কাজ করতে পারবেন। অনেক সময় ১০ লাইনের ১ টা javascript কোড মাত্র ১ লাইনের jquery দিয়ে করা সম্বব। Javascript শেখার পরে এটি শুরু করলে ১৫ দিন মতো লাগবে।

Bootstarp: Bootstarp ফ্রেমওয়ার্ক এর মাধ্যমে আপনি অতিদ্রুত মোবাইল ফ্রেন্ডলি ,রিসপনসিভ ওয়েব সাইট তৈরি করতে পারবেন। আর বর্তমান সময়ে প্রায় সব ওয়েব সাইটে এটা ব্যবহার করা হচ্ছে। Html, css ,javascript এর বেসিক শেষ করার পরেই আপনার bootstarp শেখা উচিত।মাত্র ১ সপ্তাহে এটি শেখা সম্ভব।

ব্যাকইন্ড বা সার্ভার সাইট ল্যাংগুয়েজ

সার্ভার সাইট ল্যাংগুয়েজ তো অনেক আছে।যেমন php,Ruby,python, ইত্যাদি।সবই অনেক ডিমানদেবল ল্যাংগুয়েজ।কিন্তু আমি সাজেস্ট করবো php শিখার জন্য।কারণ বর্তমানে প্রায় বড় বড় ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানিগুলো তাদের ওয়েবসাইট ডেভেলপমেন্ট করার জন্য php ব্যাবহার করে।এটি ওপেন সোর্স এবং ব্যবহার করা অত্যান্ত সহজ

PHP:প্রচুর পরিমান ওয়েব সাইট এবং ওয়েব এপ্লিকেশন এর সাহায্যে তৈরি করা হচ্ছে। এটি ওপেন সোর্স এবং ব্যবহার করা অত্যান্ত সহজ। ওয়েব টেকনোলজিতে এর থেকে সহজ ল্যাংগুয়েজ আপনি আর কোনটাতে পাবেন না।এবং php এর বেশ কয়েক টা জনপ্রিয় ফ্রেমওয়ার্ক (যেমন ল্যরাবেল,CodeIgniter) আছে যার সাহায্যে আরো দ্রুততার সাথে প্রয়োজনীয় কাজ করা সম্ভব।

ডাটাবেজ টেকনোলজি:আপনার ওয়েব সাইট বা ওয়েব এপ্লিকেশনে ডাটা রাখার জন্য কোন না কোন ডাটাবেজ সম্পর্কে ধারনা রাখতে হবে। এ ক্ষেত্রে MySQL ,noSQL বা এই ধরনের কোন ১ টা ডাটাবেজ শিখতে হবে। তবে শুরু করার জন্য আমার মতে আপনার উচিত হবে MySQL শেখা।

কতটা সময় প্রয়োজন?
আপনার যদি আগে থেকে এই ব্যাপারে কোন ধারনা না থাকে তাহলে একজন ওয়েব ডিজাইনার হতে হলে প্রতি দিন যদি ৬-৭ ঘন্টা সময় দিতে পারেন তাহলে গড়ে ৪ মাস সময় লাগবে। এবং মোটামুটি মানের ওয়েব ডেভেলপার হতে আরো ৫-৬ লাগবে। তবে আপনার মেধা ও আগ্রহের উপরে কিছুটা কম/বেশী সময় লাগতে পারে।

কিভাবে নিজেকে দক্ষ করে তুলা যায়

উপরের সবগুলো যখন ভালো করে শেখা হয়ে যাবে তখন আপনাকে প্রচুর পরিমাণে প্র্যাক্টিস করতে হবে।থিমফরেস্ট নামে একটি মার্কেটপ্লেস আছে। যেখানে প্রতিদিনই নতুন নতুন আইডিয়া তৈরি করে ওয়েব ডিজাইনাররা তাদের টেমপ্লেটগুলো বিক্রি করে। থিমফরেস্টের নতুন নতুন স্যাম্পল দেখে দেখে ডিজাইন করার চেষ্টা করুন তাতে করে আপনার দক্ষতা বাড়বে এবং বিভিন্ন ডিজাইনের আইডিয়া তৈরি হবে।
এইচটিএমএল, সিএসএস দিয়ে ওয়েব ডিজাইন করা হচ্ছে পিওর ওয়েব ডিজাইন কিন্তু ওয়েব ডিজাইন এর সাথে আপনাকে অবশ্যই আরেকটি বিষয় জানা থাকতে হবে আর তা হচ্ছে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট কাস্টমাইজেশন। যদি সংক্ষেপে বলি ওয়ার্ডপ্রেস হচ্ছে একটি সফটওয়্যার যার মাধ্যমে আপনি কোন প্রকার কোডিং ছাড়াই একটি ওয়েবসাইট ডিজাইন করতে পারবেন। যার জন্য আপনাকে কোন প্রকার কোড লিখতে হবে না এবং এর কনটেন্ট চেঞ্জ করার জন্য আপনাকে কোডিং এর প্রয়োজন বোধ হবে না তাই ওয়ার্ডপ্রেসের মাধ্যমে ওয়েবসাইট ডিজাইন করাটা অনেক সহজ এবং চাহিদা প্রচুর। এইচটিএমএল, সিএসএস দিয়ে ডিজাইন গুলো তৈরি করুন তারপর তা ওয়ার্ডপ্রেসের থিম অথবা ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটের মধ্যে ইমপ্লিমেন্ট করুন।

ফ্রিলান্সার হিসাবে কোথা থেকে কিভাবে কাজ পাব?

ওয়েব ডিজাইনার/ডেভেলপার হিসাবে কাজ পাওয়ার পুর্বে প্রথমেই আপনাকে যে কাজটা করতে হবে সেটা হলো নিজের ১ টা পোর্টফোলিও ওয়েব সাইট তৈরি করতে হবে অর্থাৎ আপনি যে কাজ পারেন তার নমুনা বা ডেমো সাজিয়ে এবং নিজের সর্ম্পকে সুন্দর ভাবে বর্ণনা দিয়ে ১ টা ওয়েব সাইট তৈরি করতে হবে। তারপরে বিভিন্ন মার্কে্টে (আপয়ার্ক, ফাইবার,ফ্রিল্যান্সার, পিপল পার আওয়ার) একাউন্ট খুলে কাজের জন্য আবেদন করা শুরু করলে সব ঠিক থাকলে কিছুদিনের ভিতরেই কাজ পাবেন।

কেমন আয় হতে পারে?
কতো আয় হবে সেটা সম্পূর্ণ আপনার দক্ষতার উপরে নির্ভর করে ।আপনি লোকাল জব করলে একজন ডেভেলপার হিসাবে গড়ে ২০ থেকে ৮০ হাজার এর মতো পেতে পারেন। এবং ফ্রিলান্সার হিসাবে কাজ করলে দক্ষতার উপরে নির্ভর করে প্রতি ঘন্টায় ৫ ডলার থেকে শুরু করে ৭০/৮০ ডলার পর্যন্ত পাওয়া যায় এবং মাস শেষে ৫০ হাজার থেকে কয়েক লক্ষ টাকা ইনকাম করা সম্ভব।

6 months ago (4:22 pm) 860 views
Report

About Author (106)

Author

নিজে শিখুন এবং অন্যকে শিখতে সাহায্য করুন

 

3 responses to “ওয়েব ডিজাইন এন্ড ডেভেলপমেন্ট পরিপূর্ণ গাইডলাইন”

  1. SAjid imon
    Author
    says:

    ধণ্যবাদ

  2. SAjid imon
    Author
    says:

    ভাই উইথড্র রিকুয়েস্ট দেয়া যাচ্ছে না

Leave a Reply

You must be Logged in to post comment.

Related Posts

Copyright © WizBD.Com, 2018-2019