Search Any Post Of WizBD.Com
 HomeEducational Guidelinesজেনে নিন ইন্দোনেশিয়ার ভয়ংকর লোককথাগুলো সম্পর্কে

জেনে নিন ইন্দোনেশিয়ার ভয়ংকর লোককথাগুলো সম্পর্কে

বাংলা লোককথায় কত ভূত পেত্নী আর রাক্ষস খোক্কসের গল্প শুনেছেন ছোট বেলায়। এগুলা যেন অলংকৃত করে রেখেছে আমাদের লোকশিল্পকে। ঠিক এমনই ভাবে বিভিন্ন দেশের কৃষ্টিকালচারে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের গল্পকথা। আজ আপনাদের শুনাবো ইন্দোনেশিয়ার প্রচলিত কয়েকটি গল্পকথা। যা শুনে আপনার শরীরের সব ক’টি লোপ দাঁড়িয়ে যেতে পারে। তাহলে চলুন জেনে নেই ইন্দোনেশিয়ায় প্রচলিত গল্পকথা গুলি,

Pocong:
মারা যাবার পরে, কবর দেবার সময় মৃত দেহকে সাদা কাপর দিয়ে মুড়িয়ে তার মাথার উপর একটা গিট আর পায়ের কাছে একটা গিট দেওয়া হয়। আর কবর দেবার পরে তারা তাদের ইচ্ছা অনুযায়ী কবর থেকে বেরিয়ে আসতে পারে পার্থিব দুনিয়ায়। যেহেতু তাদের হাত পা বাঁধা থাকে তাই তারা লাফিয়ে লাফিয়ে চলে। এদের চেহারা অনেক সময় সাদা, গলিত বা অনেক সময় মাংস বাদে শুধু কঙ্কালও থাকতে পারে। এদের এরকম ফিরে আসার কারন হচ্ছে, তাদের অসম্পূর্ন কাজ। আর সেই কাজের জন্যই এরা বাইরে বেরিয়ে আসে। যেহেতু এদের হাত বাঁধা থাকে তাই এরা অনেক সময় আপনার দরজায় ধাক্কা দিয়ে থাকে তাদের মাথা দিয়ে।

Thuyul:
এরা হল গর্ভাবস্থায় মৃত বাচ্চা বা মৃত বাচ্চা। এদের সাধারনত কেউ পুষে রাখে এবং এরা যে কারো ঘর থেকে টাকা পয়সা চুরি করতে পারে। এদের দেখতে বাচ্চাদের মত, মাথায় কোন চুল থাকে না, সাধা চামরা এবং অনেক সময় কৃষ্ণ বর্নের চোখ থাকে। এরা শুধু মাত্র বাচ্চাদের পরিহিত ছোট নেংটি পরিহিত অবস্থাতেই থাকে। অনেকেই মনে করে Thuyul এর হাত থেকে তাদের টাকা পয়সা বাঁচাবার উপায় আছে। আর তা হল ঘরের ভিতরে ফলের বীচি রেখে দেওয়া। Thuyul এই বীচি দেখলেই তা গুনতে বসে যাবে। আর তা বারবার তারা গুনতে থাকবে যতক্ষন পর্যন্ত তারা টাকা পয়সা চুরি করার কথা ভূলে না যাবে। আর এদের ধাওয়া করে আপনি ধরতে পারবেন শুধু মাত্র এদের মত নেংটি পরিহিত অবস্থাতেই। লোকমতে অনেকেই Thuyul কে দেখেছেন এবং একে ধরার চেষ্টাও করেছেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত কেউ তা করতে পারেন নাই বা পারলেও আজ অবধি তা প্রকাশ করেন নাই।

Gendruwo/Gandaruwo:
Gendruwo মূলত খারাপ ভূত। আর লিঙ্গ বিশেষে এরা সকলেই পুরুষ ভূত। এদের সম্পূর্ন শরীর নোংরা লম্বা লোমে ঢাকা থাকে, মাথায় থাকে লম্বা লম্বা চুল, আর লোমের রঙ হয় কালচে লাল। এদের হাতে ও পায়ে আছে বিশাল বড় বড় নোখ। ভয়ংকর প্রাণী বলতে যা বুঝায় তার সব গুনাগুনই আছে এর মাঝে। যদি মধ্য রাতে আপনি পচা মাংসের পোড়া গন্ধ পান আপনার জানালার বাইরে তার মানে সেখানে আছে Gendruwo. এরা নিজেদের রূপ পরিবর্তন করতে সক্ষম। অনেক সময় এরা অনেক স্ত্রী লোকের স্বামীর রূপ ধরে তাদের সাথে দৈহিক মিলনে মিলিত হয়।

Kuntilanak:
লোক বিশ্বাস মতে এরা হল সেই সকল নারী যারা সন্তান জন্ম দেবার পূর্বেই মারা যায়। এরা সাদা জামা পরে থাকে, আর মাথায় থাকে কাল লম্বা চুল, এদের চেয়ারা থাকে ভয়ঙ্কর আর তার থেকেও বেশি ভয়ঙ্কর এদের অট্ট হাসি। এদের বসবাস উচু গাছের মাথায়। আর ঐ গাছের তলা দিয়ে যারা যায়, সুযোগ বুঝে তাদের ধরে। তারা পথিককে আটকে প্রচন্ড জোড়ে হাসি দিয়ে ভয় দেখায় এবং একটু পরেই উধাও হয়ে যায়। এমনকি তারা নিজেদের সুন্দরী নারীতে পরিনত করে গাড়ি চালকদের অন্ধকার পথে দাড় করিয়ে তাদের কাছে সাহায্য চায়, আর যে সাহায্য করে তার পরিনতি মৃত্যু।

লেখকঃ জানা অজানার পথিক।

2 years ago (1:29 pm) 1683 views
Report

About Author (103)

Sourov
Administrator

Error 505

 

1 responses to “জেনে নিন ইন্দোনেশিয়ার ভয়ংকর লোককথাগুলো সম্পর্কে”

Leave a Reply

You must be Logged in to post comment.

Related Posts

Copyright © WizBD.Com, 2018-2019